- শিক্ষক নিয়োগ, শিক্ষা সংবাদ

প্রাথমিক নিয়োগ পরীক্ষার কাট মার্কস

পরীক্ষার্থীদের আলোচনার একমাত্র ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে এবারের পরীক্ষার কাট মার্কস কত হবে? এ নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা। আগে পরীক্ষার প্রশ্ন কেমন হবে তা নিয়ে নির্ঘুম রজনী কাটলেও এবার উপদ্রব হয়ে হাজির হলো কাট মার্কস।

তাই কাট মার্কসের বিষয়ে কথা বলেছে কয়েকজন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার বোদ্ধার সাথে। যারা দীর্ঘদিন যাবত প্রাথমিকে পরীক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করছেন। প্রশ্নপত্র বিশ্লেষণ, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা, বিগত কয়েকটি প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা পর্যালোচনা করে কেউ মনে করছেন কাট মার্কস ৬৫ হতে পারে, আবার কেউ বলছেন ৬০ থেকে ৬৫ নম্বরের মধ্যে থাকলেই চলবে। তবে বিষয়টি তাদের অভিজ্ঞতালব্ধ ধারণা মাত্র। সেক্ষেত্রে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তর সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবে বলে মনে করছেন তারা।

প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য এক নম্বর এবং প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানায়, গত বছরের ১ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে ২৪ লাখের বেশি আবেদন জমা পড়েছে। ১৩ হাজার পদের বিপরীতে এসব আবেদন জমা পড়ে। নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নও করা হচ্ছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে।

বিগত বছরের চেয়ে এবারের প্রশ্ন বলা চলে একটু সাধারণ মানের করা হয়েছে। সুতরাং মোটামুটি সবাই ভালো পরীক্ষা দিয়েছেন। তাই কাট মার্কসও একটু বেশি হবে। এছাড়া এটিও বলা বাহুল্য, এমসিকিউ প্রশ্নের বৃত্ত বরাট করতে গিয়ে অনেকে কমন কিছু ভুল করে বসেন। তাই পরীক্ষার হলে বেশ ভালো করলেও তাদের কিছু নম্বর কাটা যাবে। তাই কাট মার্কস ৬৫ থেকে ৭০ এর মধ্যে থাকবে।

এবার বুয়েটের বিশেষ সফটওয়ার ব্যবহার করে পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সেট সাজানো হয়। প্রশ্ন প্রণয়নে সাধারণ মান রক্ষা করা হয়েছে। প্রশ্ন পেয়ে যারা ঠাণ্ডা মাথায় উত্তর দেয়ার চেষ্টা করছেন তারা সহজে কাট মার্কসে প্রবেশ করতে পারবেন। প্রশ্নের মান যেহেতু মধ্যম পর্যায়ে রাখা হয়েছে সুতরাং কাট মার্কসও ৬০ এর উপরে হতে পারে বলে জানান তারা।

একাধিক পরীক্ষার্থী জানান, প্রশ্ন তুলনামূলক সহজ হয়েছে। তারপরও যেহেতু প্রতিযোগী সংখ্যা ২৪ লাখেরও বেশি; তাই যোগ্য ও দক্ষরাই টিককে। আব্দুল আলীম নামে এক শিক্ষার্থী জানান, যতটা কঠিন ধারণা ছিল ততটা হয়নি, স্ট্যান্ডার্ড প্রশ্ন বলা যায়; যেখানে কঠিন-সহজের মিশ্রণ ছিল।

প্রসঙ্গত, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রাজস্ব খাতভুক্ত সহকারী শিক্ষক নিয়োগ-২০১৮ এর লিখিত পরীক্ষা চার ধাপে পর্যায়ক্রম ২৪ মে, ৩১ মে, ১৪ জুন ও ২১ জুন (শুক্রবার) সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × one =